বাঙ্গালহালিয়ায় মগ পার্টি সন্ত্রাসীদের কর্তৃক এক জুম্ম গ্রামবাসী অপহৃত

0
513
Photo: Mog Party armed terrorists

হিল ভয়েস, ১৮ নভেম্বর ২০২২, রাঙ্গামাটি: রাঙ্গামাটি জেলাধীন রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের বাঙ্গালহালিয়া বাজার থেকে সেনামদদপুষ্ট মগ পার্টি সন্ত্রাসীদের কর্তৃক এক নিরীহ জুম্ম অপহরণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে অপহরণের একদিন পর ৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপণের বিনিময়ে অপহরণকারীরা ওই গ্রামবাসীকে ছেড়ে দিয়েছে বলে জানা গেছে।

অপহরণের শিকার ব্যক্তি হচ্ছেন কাপ্তাই উপজেলার ২নং রাইখালী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের নারানগিরি বড় পাড়ার বাসিন্দা মৃত মংপুহ্লা মারমার ছেলে মংচিংসা মারমা (৫০)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ১৬ নভেম্বর ২০২২ সকালের দিকে মংচিংসা মারমা নিজ বাড়ি থেকে বাজার করার জন্য বাঙ্গালহালিয়া বাজারে যান। সকাল প্রায় ১১:০০ টার দিকে মংচিংসা মারমা বাজার করার সময় সেখানে মগ পার্টি সন্ত্রাসীদের একটি দল আসে এবং মংচিংসা মারমাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

পরে পরিবারের লোকজন অপহরণকারীদের সাথে যোগযোগ করলে অনেক দরকষাকষির পর অপহরণকারীরা ৫ লক্ষ টাকার বিনিময়ে অপহৃত মংচিংসা মারমাকে ছেড়ে দেয়।

উল্লেখ্য যে, বিদেশী সশস্ত্র গ্রুপ এএলপির দলছুট সশস্ত্র সদস্যদের নেতৃত্বে গঠিত মগপার্টি নামে খ্যাত এমএনপি সশস্ত্র সন্ত্রাসীদেরকে রাজস্থলী উপজেলার গাইন্দা ইউনিয়নের পোয়াইতু পাড়ায় মোতায়েন রেখে রাঙ্গামাটির রাজস্থলী ও কাপ্তাই এবং বান্দরবান সদর ও রোয়াংছড়ি উপজেলায় সেনাবাহিনী জনসংহতি সমিতিসহ পার্বত্য চুক্তি সমর্থক ও নিরীহ ব্যক্তিদের অপহরণ, মুক্তিপণ আদায়, হত্যা ও চাঁদাবাজি ইত্যাদি সন্ত্রাসী কার্যক্রম অবাধে চালিয়ে যেতে মদদ দিয়ে চলেছে।

মগপার্টিকে সেনাবাহিনী ও ক্ষমতাসীন দল কর্তৃক আশ্রয়-প্রশ্রয় প্রদানের অন্যতম ঘটনা হচ্ছে গত ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ তারিখে মগপার্টি সশস্ত্র সদস্যদেরকে অস্ত্রশস্ত্রসহ প্রকাশ্যে বান্দরবান শহরের উজানী পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রাতযাপনের আশ্রয় দেয়া। এ ঘটনায় এলাকায় চরম আতঙ্ক ও তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছিল।