আলিকদমে সেনাবাহিনীর মারধরের শিকার দুই নিরীহ জুমচাষী

0
474

হিল ভয়েস, ২৬ আগস্ট ২০২৩, বান্দরবান: বান্দরবান জেলাধীন আলিকদম উপজেলার সদর ইউনিয়নের সাংপায়া পাড়া গ্রামের দুই নিরীহ জুম্ম জুমচাষী সেনাবাহিনীর অমানুষিক মারধরের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মারধরের শিকার দুই জুমচাষী হলেন- রাংরেং ম্রো (২৭), পীং-মাংসাই ম্রো এবং মাংনৈং ম্রো (৩২), পীং-বানোয়া ম্রো।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এখন পাহাড়ে জুমের ধান পাকার মৌসুম। ফলে এই সময়ে জুমে জুমে বন্য শুকরের পাল ও বানরের দল এসে ফসল নষ্ট করে থাকে। সেকারণে প্রত্যন্ত অঞ্চলের অনেক জুমচাষী প্রায়ই নিজেদের তৈরি গাদা বন্দুক দিয়ে জুমে পাহারা দিয়ে থাকে। ফসল রক্ষার এই নিয়ম বহুদিন আগে থেকে চলে আসছে।

ঐদিন সকাল বেলায় ভুক্তভোগী রাংরেং ম্রো ও মাংনৈং ম্রো নিজেদের গ্রামের পার্শ্ববর্তী জুমে গিয়েছিলেন গাদা বন্দুক নিয়ে। এই সময় জুমে শুকর এলে তারা গাদা বন্দুক দিয়ে গুলি করে। এই গুলির শব্দ শুনে পার্শ্ববর্তী দোছড়ি বাজার সেনা ক্যাম্পের সেনাবাহিনীর ১০-১২ জনের একটি দল ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হয় এবং রাংরেং ম্রো ও মাংনৈং ম্রোকে সেনা ক্যাম্পে ধরে নিয়ে যায়। সেনা ক্যাম্পে দুই জুমচাষীকে ব্যাপক মারধর করা হয়। গুলি করতে হলে সেনাবাহিনীর অনুমতি লাগবে বলে জানায় সেনা ক্যাম্প কর্তৃপক্ষ।

পরে অবশ্য দুই ভুক্তভোগীকে ছেড়ে দেওয়া হয় এবং তারা নিজ নিজ বাড়িতে প্রাথমিক চিকিৎসা নেয় বলে জানা যায়।