লংগদুতে বিজিবি কর্তৃক বেআইনীভাবে জুম্ম ব্যবসায়ীর নিজস্ব কাঠ জব্দ ও জনগণকে হয়রানি

0
490
ছবি : প্রতিকী

হিল ভয়েস, ২৪ অক্টোবর ২০২৩, রাঙ্গামাটি: রাঙ্গামাটি জেলার লংগদুর বগাচতর ইউনিয়নের অন্তর্গত চিবেরেগা এলাকা থেকে জনৈক এক জুম্ম কাঠ ব্যবসায়ীর নিজস্ব কাঠ বিজিবি কর্তৃক বেআইনীভাবে জব্দের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আজ ২৪ অক্টোবর ভোর ৬ টায় ৩৭ বিজিবি, রাজনগর জোন, গুলশাখালী, লংগদু এডি মোঃ হাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে বিজিবির ৩০/৩৫ জনের একটি দল দুইভাগে বিভক্ত হয়ে বগাচতর ইউনিয়নের অন্তর্গত চিবেরেগা এলাকায় স্থলপথে ২টি জীপ গাড়ি ও জলপথে একটি ইঞ্জিন চালিত বোট নিয়ে নলুয়া ছড়ার ভিতর দিয়ে পাহাড়ের দিকে যায়। সেখানে পুরো এলাকায় তল্লাশী চালিয়ে আদিবাসীদের নিজস্ব বাগান থেকে সংগৃহীত জনৈক ব্যবসায়ীর ৬১ লগ গামারী কাঠ ও ৫ লগ সেগুন কাঠ আনুমানিক ১৮০-২০০ ফুট কাঠ নিয়ে চলে যায়।

লংগদু উপজেলার বিজিবির আওতাধীন বিভিন্ন এলাকায় প্রায় সময় দিনে-রাতে ২৪ ঘন্টা টহল অভিযান পরিচালনা করার কারণে এলাকার জনসাধারণের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। নিজেদেরে বসতবাড়ির কাজে ব্যবহারের জন্য কোনো প্রকার গাছ, বাঁশও সংগ্রহ করতে পারছেনা এলাকাবাসী।

এতে সাধারণ মানুষের উপার্জন যেমনি ব্যহত হচ্ছে, তেমনি বাগান মালিক ও ব্যবসায়ীরাও সার্বিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩, রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সারোয়াতলী ইউনিয়নে লংগদুর ৩৭ বিজিবি রাজনগর জোনের জোন কমান্ডার লে. কর্নেল শাকিল এর নির্দেশে রাঙায়্যা চাকমা, পীং-শরত্যা চাকমা, গ্রাম-চিন্তারাম ছড়া, ৫নং ওয়ার্ড, ৩০নং সারোয়াতলী ইউনিয়ন এর আনুমানিক ১৫০ ঘনফুট সেগুন কাঠ যার স্থানীয় বাজারমূল্য ১ লক্ষ টাকা জব্দ করে ক্যাম্পে নিয়ে যায়। উক্ত কাঠগুলি রাঙায়্যা চাকমার নিজস্ব বাগানের এবং জোত পারমিটের ডি ফরম করা। তিনি এই সেগুন কাঠগুলি নিজের বাড়ির উঠোনে বিক্রির জন্য বিছিয়ে রেখেছিলেন।

বাঘাইছড়িতে বিজিবি কর্তৃক জোরপূর্বক বেআইনিভাবে এক জুম্মর সেগুন কাঠ জব্দ