রোয়াংছড়িতে সেনাবাহিনী কর্তৃক জুম্ম গ্রামে তল্লাশি অভিযান, ৩ জনকে আটক ও পরে মুক্তি

0
966
ছবি : প্রতীকী

হিল ভয়েস, ২১ জুন ২০২১, বান্দরবান: বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক বান্দরবান পার্বত্য জেলাধীন রোয়াংছড়ি উপজেলার রোয়াংছড়ি ইউনিয়ন ও আলেক্ষ্যং ইউনিয়নের চারটি জুম্ম গ্রামে তল্লাশি অভিযান চালিয়ে তিন নিরীহ জুম্মকে সাময়িকভাবে আটক করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আটককৃতদের প্রায় ৫ ঘন্টা আটক রেখে এবং বিভিন্ন প্রশ্ন জিজ্ঞাসাবাদ করে ও হুমকি দিয়ে পরে ছেড়ে দেওয়া হছে বলে জানা গেছে।

আজ ২১ জুন ২০২১ সকালের দিকে এই ঘটনা ঘটেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আজ ভোর ৫:০০ টার দিকে রোয়াংছড়ি সেনা ক্যাম্পের সেনাবাহিনীর ১৬ বীর এর একজন মেজর ও সুবেদার শফিকুল ইসলাম শফিক এর নেতৃত্বে একদল সেনা সদস্য একই উপজেলার রোয়াংছড়ি ইউনিয়নের অংগ্য পাড়া গ্রাম এবং আলেক্ষ্যং ইউনিয়নের চক্ষুলাল পাড়া, নাটিংঝিরি পাড়া ও ওয়াগই পাড়া এলাকায় তল্লাশি অভিযান চালায়। এসময় সেনা সদস্যরা তিন ব্যক্তিকে আটক করে এবং কয়েকজন গ্রামবাসীর আইডি কার্ড নিয়ে যায়।

জানা গেছে, তল্লাশি অভিযানের সময় সেনাদলটি অংগ্য পাড়া থেকে মংএচিং মারমা (৪৫), পীং-সাগ্যপ্রু মারমা নামে এক নিরীহ গ্রামবাসী কৃষিজীবী এবং চক্ষুলাল পাড়া থেকে আরও দুই জুম্ম যুবককে আটক করে সেনা ক্যাম্পে নিয়ে যায়। রিপোর্টটি লেখা পর্যন্ত দুই যুবকের নাম জানা যায়নি।

সেনাদলটি আটককৃত তিন জুম্ম গ্রামবাসীকে ক্যাম্পে নিয়ে গিয়ে প্রায় ৫ ঘন্টা যাবৎ আটক করে রাখে। এসময় সেনা সদস্যরা জুম্ম গ্রামবাসীদের তাদের বাড়িতে সন্ত্রাসী আসে বলে অভিযোগ করে এবং বিভিন্ন প্রশ্ন জিজ্ঞাসাবাদ করে। জিজ্ঞাসাবাদের সময় সেনা সদস্যরা অস্ত্র তাক করে জুম্ম গ্রামবাসীদের মেরে ফেলার হুমকিও প্রদান করে।

সকাল ১০:০০ টার দিকে আটককৃত জুম্মদের রোয়াংছড়ি সেনা ক্যাম্প থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।