রুমায় কেএনএফ কর্তৃক ২ জনকে মারধর, ৬ জনকে অপহরণের দুই ঘন্টা পরে মুক্তি

0
682
ছবি : প্রতিকী

হিল ভয়েস, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, বান্দরবান: আজ (৭ ফেব্রুয়ারি) বান্দরবান জেলাধীন রুমা উপজেলার পাইন্দু ইউনিয়নে সেনা-সৃষ্ট বম পার্টি খ্যাত কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট (কেএনএফ) কর্তৃক ২ আদিবাসী মারমা গ্রামবাসীকে মারধর করা এবং অপর ৬ মারমা গ্রামবাসীকে অপহরণের দুই ঘন্টা পর ছেড়ে দেওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

মারধরের শিকার ব্যক্তিরা হলেন- মংমংসিং মারমা (২৮), পীং-মংঞো মারমা, গ্রাম-নিয়াংক্ষ্যং পাড়া, পাইন্দু ইউনিয়ন এবং মংমংসিং মারমার এক সঙ্গী (নামা জানা যায়নি)।

অপরদিকে সাময়িক অপহরণের শিকার ব্যক্তিরা হলেন- ১. উচিংমং মারমা (৪১), পীং-প্রুসাথুই মারমা, গ্রাম-পারুয়া পাড়া, পাইন্দু ইউনিয়ন; ২. নাম-অজ্ঞাত, গ্রাম-পারুয়া পাড়া; ৩. শৈথুইসাই মারমা (৫০), পীং-অজ্ঞাত, গ্রাম-নিয়াংক্ষ্যং পাড়া, পাইন্দু ইউনিয়ন; ৪. অংসাইনু মারমা (১৭), পীং-চমংউ মারমা, গ্রাম-নিয়াংক্ষ্যং পাড়া, পাইন্দু ইউনিয়ন; ৫. অংথোয়াইচিং মারমা (৪৫), পীং-আদামং মারমা, গ্রাম-নিয়াংক্ষ্যং পাড়া, পাইন্দু ইউনিয়ন ও ৬. মংএনু মারমা (৪৩), পীং-মেদুসে মারমা, গ্রাম-নিয়াংক্ষ্যং পাড়া, পাইন্দু ইউনিয়ন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আজ সকাল ৮টার দিকে কেএনএফ-এর ১১ জনের একটি সশস্ত্র দল পারুয়া পাড়া গ্রামে তল্লাসি চালিয়ে সরকারি অনুমতিপ্রাপ্ত গ্রামবাসীদের দুটি বন্দুক ছিনিয়ে নেয় এবং সেই গ্রাম থেকে উচিংমং মারমা ও অজ্ঞাতনামা আরও ব্যক্তিকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

এরপর কেএনএফ সন্ত্রাসী দলটি পারুয়া পাড়া ত্যাগ করে পার্শ্ববর্তী নিয়াংক্ষ্যং পাড়া গ্রামে যায়। এসময় সন্ত্রাসীরা নিয়াংক্ষ্যং পাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে কথা বলতে থাকা মংমংসিং মারমা ও তার এক সঙ্গীকে পেয়ে তাদেরকে মারধর করে গ্রামের ভেতরে নিয়ে যায়। সেখানে সন্ত্রাসীরা গ্রামবাসীদের দুটি কুকুর গুলি করে মারে এবং গ্রামবাসীদের নারিকেল গাছ থেকে ২২টি নারিকেল পেড়ে নেয়। এরপর উক্ত কুকুর ও নারিকেলগুলো সঙ্গে নিয়ে নিয়াংক্ষ্যং পাড়ার উপরোক্ত চার গ্রামবাসীকেও অপহরণ করে নিয়ে যায়। তবে যাওয়ার আগে কুকুর ও নারিকেলের দাম হিসেবে ২০০০ টাকা দিয়ে যায় বলে জানা যায়।

এদিকে পরে দুপুর প্রায় ১২:০০ টার দিকে সন্ত্রাসীরা অপহৃত ৬ গ্রামবাসীকে মুক্তি দিয়েছে বলে স্থানীয় একটি সূত্র জানায়।