বাঙ্গালহালিয়ায় মগ পার্টি সন্ত্রাসীদের কর্তৃক আরো এক মারমা গ্রামবাসী অপহৃত

0
689
ছবি: প্রতীকী

হিল ভয়েস, ৫ জুলাই ২০২২, রাঙ্গামাটি: সেনামদদপুষ্ট মগ পার্টি সন্ত্রাসীদের কর্তৃক রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলাধীন রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের বাঙ্গালহালিয়া বাজার থেকে বান্দরবানের আরো এক নিরীহ মারমা গ্রামবাসী অপহরণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আজ (৫ জুলাই ২০২২) সকাল আনুমানিক ৯:০০ টার দিকে এই অপহরণের ঘটনা ঘটেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

অপহরণের শিকার ব্যক্তির নাম কালামং মারমা (৩১), পিতা-মৃত সানু অং মারমা, গ্রাম-মশালবনিয়া পাড়া, ৪নং ওয়ার্ড, রাজভিলা ইউনিয়ন, বান্দরবান সদর উপজেলা। তিনি আজ সকালে তার বাড়ি থেকে বাঙ্গালহালিয়া বাজারে আসেন শুকরের ছানা বিক্রি করতে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আজ সকালে বাঙ্গালহালিয়া বাজারে শুকরের ছানা বিক্রি করার পর কালামং মারমা বাজারের একটি দোকানে পাওয়ার টিলার গাড়ির তেল কিনতে যায়। ঐ সময় সকাল ৯:০০ টার দিকে উসিংমং রাখাইন ওরফে মুন্ডি’র নেতৃত্বে মগ পার্টির কয়েকজন সশস্ত্র সদস্য কালামং মারমাকে সেখান থেকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

এদিকে স্বামীর অপহরণের ঘটনার খবর শুনে কালামং মারমার স্ত্রী অজ্ঞান হয়ে পড়ে বলে জানা গেছে। এরপর অপহৃত কালামং মারমা স্ত্রীকে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানা যায়।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অপহরণ ঘটনার সর্বশেষ খবর জানা যায়নি।

উল্লেখ্য, গত ২৯ জুন ২০২২ রাত আনুমানিক ৮:০০ টার দিকে উসাইনু মারমা ওরফে অনুমং এর নেতৃত্বে মগ পার্টি সন্ত্রাসীদের একটি সশস্ত্র দল কর্তৃক বান্দরবান জেলা সদরের নতুন ব্রিজ নামক স্থান থেকে চসিংনু মারমা (২৯), পীং-ক্যসাচিং মারমা নামে এক নিরীহ যুবককেও অপহরণ করে নিয়ে যায়। চসিংনু মারমার বাড়ি বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলার সদর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের ঘেরাও ভিতর পাড়া গ্রামে বলে জানা গেছে। এখনো পর্যন্ত চসিংনু মারমাকে ছেড়ে দেয়নি মগ পার্টির সন্ত্রাসীরা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বাঙ্গালহালিয়ার স্থানীয় ক্ষুব্ধ এক মারমা মুরুব্বি জানান, প্রশাসনের নাকের ডগায়ই এসব ঘটে চলেছে, কিন্তু প্রশাসন এসব দেখেও না দেখার এবং জেনেও না জানার ভান করছে। প্রশাসনের এব্যাপারে নিরব ভূমিকার কারণে রাজস্থলীতে আজ মগ পার্টি সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে।