পিসিপি’র উদ্যোগে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সংকট নিরসনের দাবিতে রাঙ্গামাটি কলেজ অধ্যক্ষের নিকট স্মারকলিপি

0
1003

হিল ভয়েস, ১৩ মার্চ ২০২৪, রাঙ্গামাটি: আজ ১৩ মার্চ ২০২৪ পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের (পিসিপি) রাঙ্গামাটি সরকারি কলেজ শাখার নেতৃবৃন্দের উদ্যোগে কলেজে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা ও শিক্ষার মান বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন সংকট নিরসনের দাবিতে অধ্যক্ষের বরাবরে একটি স্মারকলিপি পেশ করা হয়েছে।

স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, ‘প্রত্যেক বছর ভর্তির সময় কলেজ প্রশাসন কর্তৃক নির্ধারিত ভর্তির ফি সঠিক সময়ে পরিশোধ করে শিক্ষার্থীরা ভর্তি হয়ে থাকে। ফি পরিশোধের বিনিময়ে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা কলেজ প্রশাসন শিক্ষার্থীদের জন্য সুনিশ্চিত করার কথা। কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় যে, বর্তমান সময়ে দ্রব্যমূল্যের বৃদ্ধিসহ জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় আমাদের জীবন দূর্বিষহ হয়ে উঠেছে। কলেজের নানা সংকটের মধ্যে একটি উল্লেখযোগ্য সংকট হলো পরিবহন সংকট। একদিকে পরিবহন ফি বেশি হওয়ায় টাকা পরিশোধ করতে হিমশিম খেতে হয়, অন্যদিকে কলেজের নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থা না থাকায় ভাড়ায় চালিত পরিবহনে যাতায়াতের কারণে অনেক সময় শিক্ষার্থীরা ক্লাস ও বিভিন্ন পরীক্ষায় সঠিক সময়ে অংশগ্রহণ করতে পারে না, যার ফলে শিক্ষার্থীদের শিক্ষা জীবনে বিভিন্নভাবে ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে। অত্র কলেজ একটি সুনামধন্য কলেজ, তিন পার্বত্য জেলার অন্যতম কলেজ যেখানে সবচেয়ে বড় সংকট হলো শিক্ষক সংকট। যেখানে কলেজে ১৩টি অনার্স এবং ৮টি মাস্টার্স কোর্সসহ বিভিন্ন বিভাগের পাস কোর্স বর্তমানে চালু রয়েছে। অথচ প্রত্যেক বিভাগে নূন্যতম যে শিক্ষক থাকার কথা সে তুলনায় শিক্ষক নেই। যার কারণে প্রয়োজনের তুলনায় পর্যাপ্ত সংখ্যক শিক্ষক না থাকায় শিক্ষার্থীদের যথাযথভাবে নিয়মিত শ্রেণি পাঠদান হতে বঞ্চিত হতে হচ্ছে। এতে শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার মান একদিকে যেমন বৃদ্ধি পাচ্ছে না অন্যদিকে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার ফলাফল মানসম্মত হচ্ছে না।’

স্মারকলিপিতে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা ও শিক্ষার মান বৃদ্ধি নিশ্চিতকল্পে নিম্নোক্ত ৭ দফা দাবি জানানো হয়:

১. পরিবহন ফান্ডের অর্থ থেকে পূর্বের সিদ্ধান্ত মোতাবেক নিজস্ব দুটি বাস দ্রুত ক্রয় এবং পরিবহন ফি ৫০০ (পাঁচশত) টাকার পরিবর্তে ৩০০ (তিনশত) টাকা নির্ধারণ করতে হবে।

২. বাংলা, সমাজবিজ্ঞান, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, ইতিহাস, দর্শন, প্রাণীবিদ্যা বিভাগসহ কলেজে যে সকল বিভাগে শিক্ষক সংকট রয়েছে সেই সকল বিভাগে অন্তর্বর্তীকালীন অস্থায়ী শিক্ষক নিয়োগ প্রদান করে শিক্ষক সংকট নিরসনে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

৩. কলেজের যে সকল বিভাগে সেমিনার কক্ষ নেই সেই সকল বিভাগে মানসম্মত সেনিমার কক্ষ দ্রুত চালু করতে হবে।

৪. নির্মাণাধীন ছাত্রী নিবাস দ্রুত চালুর জন্য কলেজ প্রশাসন থেকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ ও ছাত্রাবাস চালুর ব্যবস্থা করতে হবে।

৫. শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে কলেজ ক্যাম্পাসে ক্যান্টিন চালু করতে হবে।

৬. ২০২৪-২০২৫ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেনীতে ভর্তি আবেদনের ক্ষেত্রে মানবিক ৩.২৫, ব্যবসায় ৩.৫০ এবং বিজ্ঞান ৩.৭৫ পয়েন্ট নির্ধারণ করতে হবে।

৭. নতুন একাডেমিক ভবন নির্মাণ করতে হবে।