মানিকছড়িতে এক মারমা নারীকে গণধর্ষণের ঘটনায় মামলা দায়ের, ৩ অভিযুক্ত গ্রেপ্তার

0
968

হিল ভয়েস, ২৯ অক্টোবর ২০২৩, খাগড়াছড়ি: খাগড়াছড়ি জেলাধীন মানিকছড়ি উপজেলার গচ্ছাবিল এলাকা থেকে চকিবিল এলাকায় আসার পথে তিন মুসলিম সেটেলার কর্তৃক এক জুম্ম নারী গণধর্ষণের শিকার হয়। এতে ভুক্তভোগী নারীর পিতা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ আইন (সংশোধন ২০২০) এর ৯ (১)/৩০ মামলার নং- ১৪/২৩ মানিকছড়ি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

উক্ত মামলায় ভুক্তভোগী নারীর পিতা উল্লেখ করেন, আমার মেয়ে ছুটিতে গতকাল বাড়িতে আসার উদ্দেশ্যে বাস যোগে বাসা থেকে রওনা দেয় এবং দুপুর অনুমানিক ১.০০ ঘটিকার সময় মহামুনি বাসস্ট্যান্ডে নেমে মহামুনি হতে মানিকছড়ি বাজারে গিয়ে বাসার জন্য বাজার করে ব্যাটারি চালিত ইজিবাইক যোগে গচ্ছাবিল বাজারে নেমে অনুমানিক ২.০০ ঘটিকার সময় গচ্ছাবিল হতে বাসার উদ্দেশে পায়ে হেটে রওনা দেয়। পথিমধ্যে মানিকছড়ি উপজেলাধীন ০১ নং মানিকছড়ি ইউনিয়নের ০২ নং ওয়ার্ডের গছাবিল পূর্বপাড়া সাকিনস্থ ভান্ডারী দোকানের ৫০০ গজ পূর্বে বেলাল মোড়লের বাগানের সামনে পৌছলে আমার মেয়ে রাস্তার পাশে অজ্ঞাতনামা ০৩ (তিন) জন ব্যক্তিকে রাস্তার উপর দাঁড়িয়ে থাকতে দেখতে পায়। অনুমানিক ০২.১৫ ঘটিকার সময় অজ্ঞাতনামা প্যান্টপরা ০১ (এক) জন বিবাদী আমার মেয়েকে মুখ চেপে ধরে টেনে বেলাল মোড়লের বাগানের ভিতর নিয়ে যায় এবং অজ্ঞাতনামা অপর প্যান্টপরা ১ জন ও লুঙ্গিপরা ১ জন মোট ২ জন বিবাদী আমার মেয়ের হাত এবং পা চেপে ধরে মাটিতে ফেলে এবং প্যান্টপরা ও আমার মেয়ের মুখ চেপে ধরা বিবাদী আমার মেয়ের পরনের পায়জামা খুলে জোরপূর্বক গণধর্ষণ করে।

খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার মুক্তাধরের ভাষ্যমতে ঘটনার ২৪ ঘন্টার মধ্যে গণধর্ষণের দায়ে আসামী মোঃ শাহ আলী, মিজানুর রহমান, মোঃ হোসেন আলী নামে তিন জন আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।