কাপ্তাইয়ে সেনাবাহিনী কর্তৃক এক নিরীহ জুম্মকে আটক, মারধর এবং পুলিশের নিকট হস্তান্তর

0
585
ছবি: প্রতীকী

হিল ভয়েস, ১৬ মে ২০২১, রাঙ্গামাটি: বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলাধীন কাপ্তাই উপজেলার রাইখালী ইউনিয়নে এক নিরীহ জুম্মকে আটক করে সেনা ক্যাম্পে নিয়ে গিয়ে মারধর করার এবং পরে পুলিশের নিকট হস্তান্তর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভুক্তভোগী ব্যক্তির নাম সাথোয়াই প্রু মারমা (৪৯), পীং-মৃত খেলুঅং মারমা, গ্রাম-১নং পাড়া, নারানগিরি এলাকা, ১ নং ওয়ার্ড, ২ নং রাইখালী ইউনিয়ন। সাথোয়াই প্রু মারমা পেশায় একজন দিনমজুর বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল ১৫ মে ২০২১ সকাল আনুমানিক ১০:০০ টার দিকে কাপ্তাই সেনা জোনের ২৩ ই বেঙ্গল রেজিমেন্টের জোন কম্যান্ডার লে: কর্ণেল মো: মিজানুল হক (পিএসসি) এর অধীনে নতুন স্থাপিত সেনা ক্যাম্পে দায়িত্বরত সুবেদার মো: নাজমুল এর নেতৃত্বে একদল সেনা সদস্য সাথোয়াই প্রু মারমাকে বাড়ি থেকে আটক করে ক্যাম্পে নিয়ে যায়। ক্যাম্পে নিয়ে গিয়ে সেনা সদস্যরা সাথোয়াই প্রু মারমাকে বেদম মারধর করে।

একই দিন সন্ধ্যা ৭:০০ টার দিকে সেনা সদস্যরা সাথোয়াই প্রু মারমাকে স্থানীয় চন্দ্রঘোনা থানায় হস্তান্তর করে।

সেনাবাহিনী কী কারণে সাথোয়াই প্রু মারমাকে আটক ও মারধর করল এবং পুলিশের নিকট হস্তান্তর করল তা জানা যায়নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন এলাকাবাসী বলেন, সেনাবাহিনী এলাকায় জুম্মদের মধ্যে ভীতির পরিবেশ সৃষ্টির জন্য একের পর এক এভাবে নিরীহ জুম্মদের আটক, আটকের পর মারধর এবং মিথ্যা মামলা দিয়ে পুলিশের নিকট হস্তান্তর করার ঘটনা ঘটিয়ে চলছে। তারা বলেন, এটা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক সুস্পষ্ট মানবাধিকার লংঘন ছাড়া আর কিছু নয়।