কাপ্তাইয়ে রাষ্ট্রীয় বাহিনী কর্তৃক অস্ত্র গুঁজে দিয়ে এক নিরীহ জুম্মকে আটক ও মিথ্যা মামলা

0
711
ছবিতে নিথোয়াই মারমা

হিল ভয়েস, ১৮ জুন ২০২১, রাঙ্গামাটি: সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে সেনা ও পুলিশ সদস্যদের একটি যৌথ দল রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলাধীন কাপ্তাই উপজেলার রাইখালী ইউনিয়নের নিজ বাড়ি থেকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে অস্ত্র গুঁজে দিয়ে এক নিরীহ জুম্মকে আটক করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আটকের পর সেনা ও পুলিশ সদস্যরা ওই জুম্মকে মিথ্যা মামলায় জড়িত করে চন্দ্রঘোনা থানায় সোপর্দ করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত পরশু ১৬ জুন ২০২১, বিকাল আনুমানিক ৪.০০ টার দিকে সেনা ও পুলিশের যৌথ বাহিনীর একটি দল রাইখালী ইউনিয়নের ডলুছড়ি গ্রামের নিজের বাড়ি থেকেই নিথোয়াই মারমা (৩৪),পীং-থোয়াইচিং মারমা নামে এক ব্যক্তিকে অস্ত্র গুঁজে দিয়ে আটক করে। এরপর সেনা ও পুলিশ সদস্যরা আটককৃত নিথোয়াই মারমাকে মিথ্যা মামলায় জড়িত করে চন্দ্রঘোনা থানায় সোপর্দ করে।

পরে সেনাবাহিনী ও পুলিশ আটককৃত নিথোয়াই মারমাকে সন্ত্রাসী হিসেবে আখ্যায়িত করে এবং তার কাছ থেকে দেশীয় তৈরি অস্ত্র এলজি ও ২ রাউন্ড কার্তুজ পেয়েছে বলে মিথ্যা প্রচার করে।

জানা গেছে, নিথোয়াই মারমা অনেক আগে পার্বত্য চট্টগ্রাম যুব সমিতির রাইখালি ইউনিয়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রামে বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে চাকরিরত রয়েছেন। ঐদিন তিনি ছুটি নিয়ে বাড়িতে বেড়াতে আসেন। আর এদিনই সেনা ও পুলিশ সদস্যরা তাকে অস্ত্র ও কার্তুজ গুঁজে দিয়ে মিথ্যা মামলায় জড়িত করে থানা সোপর্দ করে।

ইতোপূর্বে নিথোয়াই মারমার নামে কোন মামলা ছিল না বলেও জানা গেছে।