সেনামদদপুষ্ট মগ পার্টি সন্ত্রাসীদের কর্তৃক বান্দরবানের এক জুম্ম ইউপি সদস্য অপহৃত

0
506
ছবি: অপহরণের শিকার চাইউগ্য মারমা

হিল ভয়েস, ৮ মে ২০২২, বান্দরবান: বান্দরবান পার্বত্য জেলাধীন বান্দরবান সদর উপজেলার কুহালং ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত এক জুম্ম ওয়ার্ড সদস্য সেনাবাহিনী মদদপুষ্ট মগ পার্টি সন্ত্রাসীদের কর্তৃক অপহরণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল ৭ মে ২০২২ বিকেলের দিকে দুই বাঙালিকে দিয়ে মগ পার্টির সদস্যরা এই অপহরণের ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানা গেছে।

অপহরণের শিকার ভুক্তভোগী ব্যক্তির নাম চাইউগ্য মারমা (৪৬), পীং-মৃত আবু মং মারমা। তার বাড়ি কুহালং ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের চেমীডলুপাড়া গ্রামে। তিনি ১নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত সদস্য।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত কয়েকদিন ধরে মগ পার্টির সন্ত্রাসীরা রাঙ্গামাটি জেলাধীন রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়ায় গিয়ে তাদের সাথে দেখা করতে চাইউগ্য মারমাকে বলে আসছিল।

তারই সূত্র ধরে গত ৭ মে ২০২২ সকালের দিকে একটি মহেন্দ্র গাড়িযোগে কয়েকজন গ্রামবাসীকে সাথে নিয়ে ইউপি সদস্য চাইউগ্য মারমা মগ পার্টির লোকজনের সাথে দেখা করতে রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়ায় যান। অজ্ঞাত এক স্থানে মগ পার্টির সন্ত্রাসীদের দেখা ও কথাও হয় বলে জানা যায়। তবে কী বিষয়ে কথা হয় তা জানা যায়নি।

এদিকে ঐদিন বিকাল আনুমানিক ৩:০০ টার দিকে সেখান থেকে ফেরার পথে রাজস্থলীর বাঙ্গালহালিয়া বাজারের নাইক্যছড়া রাস্তার মুখে পৌঁছলে দুই অজ্ঞাতপরিচয় বাঙালি সিগন্যাল দিয়ে গাড়িটি থামায়। এরপর ওই বাঙালিরা চাইউগ্য মারমার সাথে কথা আছে বলে তাকে গাড়ি থেকে নামিয়ে রাখেন এবং অন্য গ্রামবাসীদের চলে যেতে বলেন। কথা শেষ হলে চাইউগ্য মারমাকে ছেড়ে দেয়া হবে জানায় বাঙালিরা।

এরপর ওই বাঙালিরা আরেকটি মহেন্দ্র গাড়িতে করে চাইউগ্য মারমাকে নিয়ে গিয়ে বাঙ্গালহালিয়া এলাকাস্থ মগ পার্টির সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের নিকট হস্তান্তর করে বলে জানা যায়।

এখনও পর্যন্ত চাইউগ্য মারমা মগ পার্টির সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের নিকট আটক রয়েছে বলে জানা গেছে। তবে, তাকে মুক্তির জন্য গ্রামবাসীরা মগ পার্টির সাথে যোগাযোগ করছেন বলে জানা গেছে।

একটি সূত্র জানিয়েছে, মগ পার্টির সন্ত্রাসীরা চাইউগ্য মারমার মুক্তি নিয়ে চাইউগ্য মারমা ও তার পরিবারের লোকজনের কাছ থেকে বড় অংকের মুক্তিপণ আদায় করার চেষ্টা করছে।

উল্লেখ্য যে, পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া নস্যাৎ করতে এবং জনসংহতি সমিতিসহ চুক্তি বাস্তবায়নের দাবিতে সোচ্চার ব্যক্তি ও সংগঠনের বিরুদ্ধে লেলিয়ে দেওয়ার জন্য সেনাবাহিনী, ডিজিএফআই ও আওয়ামীলীগের স্থানীয় নেতৃত্ব মগ পার্টি, সংস্কারপন্থী নামে খ্যাত জেএসএস (এম এন লারমা), ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক), বম পার্টি নামে খ্যাত কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট ইত্যাদি সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপগুলোকে আশ্রয়-প্রশ্রয় ও পৃষ্টপোষকতা দিয়ে আসছে।

তাদের মধ্যে মগ পার্টিকে রাজস্থলী উপজেলার গাইন্দ্যা ইউনিয়নের পোয়াইতু পাড়া এবং বান্দনরবান শহরের ভাড়া বাসায় মোতায়েন করে সশস্ত্র সদস্যদের দিয়ে সেনাবাহিনী ও ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগ চুক্তিবিরোধী ও জুম্ম স্বার্থ পরিপন্থী তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here