চবিতে শহীদ ছাত্রনেতা মংচসিং মারমা স্মৃতি ফুটবল টুনার্মেন্ট-২০২২ শুরু

0
272

হিল ভয়েস, ১৬ জুন ২০২২, চট্টগ্রাম: প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) এর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার উদ্যোগে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত আদিবাসী শিক্ষার্থীদের মধ্যে পারস্পরিক ভ্রাতৃত্ববোধ সুদৃঢ় করার লক্ষ্যে “শহীদ ছাত্রনেতা মংচসিং মারমা স্মৃতি ফুটবল টুনার্মেন্ট-২০২২” আয়োজন করা হয়েছে। আজ ১৬ জুন ২০২২ বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে উদ্বোধনী ম্যাচ অনুষ্ঠিত করার মধ্য দিয়ে এই টুর্নামেন্ট শুরু করা হয়েছে।

টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পিসিপি’র চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সংগ্রামী সভাপতি নবোদয় চাকমা। এছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পিসিপি’র চবি শাখার সাধারণ সম্পাদক নরেশ চাকমা ও টুর্নামেন্ট পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক অন্বেষ চাকমা প্রমুখ।

টুর্নামেন্টের উদ্বোধক নবোদয় চাকমা বলেন, ‘প্রতি বছর পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ, চবি শাখার উদ্যোগে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আদিবাসী শিক্ষার্থীদের মধ্যকার পারস্পারিক সম্পর্কগুলো আরও সুদৃঢ় করার লক্ষ্যে এই টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হয়। যার স্মরণে এই ফুটবল টুর্নামেন্ট তাঁর সম্পর্কে ছাত্র সমাজকে জানতে হবে।’ তিনি মংচসিং সহ এযাবৎ কালে আন্দোলনে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান এবং টুর্নামেন্টে সকল খেলোয়াড়দেরকে ভ্রাতৃত্ববোধ বজায় রেখে সুন্দর ও সুশৃঙ্খলভাবে খেলার জন্য আহ্বান জানান।

শহীদ ছাত্রনেতা মংচসিং মারমাকে স্মরণ করে নরেশ চাকমা বলেন, ‘মংচসিং মারমা কাপ্তাই’র সুইডিশ পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের একজন মেধাবী শিক্ষার্থী ও ছাত্রনেতা। তিনি পার্বত্য চট্টগ্রামে অধিকারহারা মানুষের একজন নির্ভীক সৈনিক ও জুম্ম জনগণের আত্মনিয়ন্ত্রণাধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের সাথে যুক্ত ছিলেন। তিনি ২০১২ সালে অনুষ্ঠিত পিসিপির সমাবেশে যোগদান শেষে ফেরার সময় রাঙ্গামাটির কল্যাণপুরের পেট্রোল পাম্পে দুর্বৃত্তদের ছোঁড়া গ্রেনেডের আঘাতে গুরুতর আহত হন ও দুইদিন পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শহীদ হন।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা যুগে যুগে দেখেছি যারা নিজের অধিকার নিয়ে কাজ করে তারা অধিকারের জন্য জীবনও উৎসর্গ করতে পারে। বর্তমান প্রজন্মকে তাঁর আত্মত্যাগ থেকে শিক্ষা নেওয়া উচিত। এই টুর্নামেন্টে তাঁকে স্মরণ করার পাশাপাশি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত পাহাড়-সমতল থেকে আসা আদিবাসী শিক্ষার্থীদের মধ্যে একতা, ভ্রাতৃত্ববোধ ও পারস্পারিক সম্পর্ক বৃদ্ধি করতে হবে। ছাত্রনেতা মংচসিং এর স্মরণে চবিতে টুর্নামেন্টের আয়োজন হয়ে আসছে এবং ভবিষ্যতেও এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে।’ তিনি পাহাড়ের জুম্ম জনগণের যে সংকট তৈরি হয়েছে সেগুলো নিয়েও চিন্তা-ভাবনা করার আহবান জানান।

এর আগে শহীদ মংচসিং মারমা সহ পার্বত্য চট্টগ্রামের জুম্ম জনগণের স্বাধিকার আদায়ের আন্দোলনে এযাবৎ সকল শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

উদ্বোধনী ম্যাচে হিল ফোর্স (২০১৯-২০ সেশন) ও কাচালং (২০২০-২১ সেশন) টিমের মধ্যকার খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলায় হিল ফোর্সের খেলোয়াড় ফুংলিয়ান বমের একমাত্র গোলে হিল ফোর্স ১-০ গোলে জয়লাভ করে।

উল্লেখ্য যে, ২০১২ সালের ২০ মে পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের ছাত্র ও জনসমাবেশে যোগদান শেষে ফেরার পথে রাঙ্গামাটির কল্যাণপুরস্থ পেট্রোল পাম্পে দুর্বৃত্তদের গ্রেনেড হামলায় ছাত্রনেতা মংচসিং মারমা সহ কাপ্তাই সুইডিশ ইনস্টিটিউটে অধ্যয়নরত অনেক শিক্ষার্থী আহত হন। মংচসিং মারমাকে মারাত্মক আহত অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করানোর দুইদিন পরে মৃত্যুবরণ করেন। তাঁর স্মৃতির স্মরণে ২০১২ সাল থেকে পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজন করে আসছে। এবারের আসরে মোট ১২ টি দল অংশগ্রহণ করছে এবং আগামী ৩০ জুন ২০২২ ফাইনাল খেলার মধ্য দিয়ে টুর্নামেন্টের এবারের আসরের সমাপ্তি ঘটবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here