রাঙ্গামাটি শহরে সেনাবাহিনী কর্তৃক এক নিরীহ জুম্ম গ্রামবাসী আটক

0
337
ছবি: প্রতীকী

হিল ভয়েস, ৩০ অক্টোবর ২০২২, রাঙ্গামাটি: রাঙ্গামাটি জেলা শহরে আসা জীবতলী এলাকার এক নিরীহ জুম্ম গ্রামবাসী সেনাবাহিনী কর্তৃক আটকের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আটকের শিকার গ্রামবাসীর নাম টুক্ক চাকমা (৩০), পীং-অমল কান্তি চাকমা, গ্রাম-পানছড়ি পাড়া, ৫নং ওয়ার্ড, জীবতলী ইউনিয়ন, রাঙ্গামাটি সদর উপজেলা। আজ (৩০ অক্টোবর ২০২২) রাঙ্গামাটি শহরের মাতৃমঙ্গল এলাকা থেকে সেনাবাহিনী টুক্ক চাকমাকে ধরে নিয়ে গেছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ৫/৬ দিন আগে টুক্ক চাকমা তার সন্তান সম্ভবা গর্ভবতী স্ত্রীকে রাঙ্গামাটি সরকারি মাতৃমঙ্গল ক্লিনিকে ভর্তি করান। সেই ক্লিনিকে টুক্ক চাকমার স্ত্রীর একটি মেয়ে সন্তানের জন্ম হয়।

শিশুটি অসুস্থ হলে আজ ডাক্তারের পরামর্শে ঔষধ ক্রয় করার জন্য মাতৃমঙ্গল ক্লিনিক হতে বের হয়ে রাস্তার পাশে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন টুক্ক চাকমা। এমন সময় একটি পিক-আপে একদল সেনাবাহিনী এসে সেখান থেকে টুক্ক চাকমাকে আটক করে নিয়ে যায়।

আটকের খবরটি জানার পরপরই জীবতলী ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধি ও গণমান্য ব্যক্তিদের একটি দল রাঙ্গামাটি শহরে এসে রাঙ্গামাটি সেনা জোনে গিয়ে সেনা কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে এবং টুক্ক চাকমার মুক্তির দাবি করেন।

এসময় রাঙ্গামাটি সেনা জোনের সেনা কর্তৃপক্ষ আটককৃত টুক্ক চাকমা ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) সন্ত্রাসীদের সাথে যোগাযোগ করে এবং সন্ত্রাসীদের আস্তানায় যাতায়াত করে বলে মিথ্যা অভিযোগ করে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক গ্রামবাসী জানান, টুক্ক চাকমা একজন নিরীহ গ্রামবাসী এবং দিনমজুরী করে কোনোরকমে জীবনযাপন করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গ্রামের এক মুরুব্বি জানান, সেনাবাহিনীর আশ্রয়-প্রশ্রয়েই তো রাঙ্গামাটি সদর উপজেলার জীবতলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পাড়ায় ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) সন্ত্রাসীদের একটি দল কয়েক বছর ধরে অবস্থান করছে। সেনাবাহিনীর ছত্রছায়ায় সেখান থেকেই এইসব সন্ত্রাসীরা পার্শ্ববর্তী জুম্ম এলাকায় নানা সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালিয়ে থাকে।

তিনি বলেন, এটা হাস্যকর ও ভিত্তিহীন অভিযোগ যে, সেনাবাহিনী ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) সন্ত্রাসীদের সাথে যোগাযোগ ও সম্পর্ক থাকার কারণে টুক্ক চাকমার মত নিরীহ মানুষকে আটক করেছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সেনাবাহিনী আটককৃত টুক্ক চাকমাকে ছেড়ে দেয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here