সাজেকে একজন জুম্মকে অস্ত্র গুঁজে দিয়ে পুলিশের নিকট সোপর্দ

0
316

হিল ভয়েস, ২৬ জানুয়ারি ২০২৩, রাঙ্গামাটি: রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক ইউনিয়নে রনি চাকমা নামে একজন জুম্মকে অস্ত্র গুঁজে দিয়ে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আটককৃত রনি চাকমা বরকল উপজেলার সুবলং এলাকার মতিলাল চাকমার ছেলে বলে জানা গেছে। রণি চাকমা একসময় ইউপিডিএফের কাজে জড়িত ছিল বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায় যে, গত মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) রনি চাকমাকে প্রথমে আটক করে ইউপিডিএফের প্রাক্তন সদস্য নতুন জয় চাকমা এবং ইউপিডিএফ সমর্থিত প্রাক্তন ইউপি সদস্য নতুন জয় চাকমা মাচালং থানায় সোপর্দ করে। কিন্তু অপরাধের কোন আলামত না থাকায় পুলিশ রনি চাকমাকে গ্রহণ করতে অস্বীকার করে।

পরে থানা থেকে নিয়ে যাওয়ার পর দেশীয় তৈরি গাদাবন্দুক গুঁজে দিয়ে রনি চাকমাকে সেদিন সন্ধ্যা ৭:০০ ঘটিকায় উক্ত দুই নতুন জয় চাকমারা পুলিশের নিকট সোপর্দ করে।

কিন্তু পুলিশের তরফ প্রচার করা হয় যে, সাজেক থানার সার্কেল এএসপি আবদুল আওয়ালের নেতৃত্বে পুলিশের একটি বিশেষ দল অস্ত্র পাচারের খবর পেয়ে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকে এসময় বস্তায় মোড়ানো ৩ টি বন্দুক ও একটি ব্যাগসহ রনি চাকমা এগিয়ে আসলে পুলিশ তাকে থামার সংকেত দিলে সে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করলে পুলিশ তার পিছু নিয়ে ঝাপটে ধরে।

পুলিশের এই বক্তব্য সম্পূর্ণ বানোয়াট ও ভিত্তিহীন বলে জানিয়েছে স্থানীয় অধিবাসীরা। মূলত পাহাড়ে সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের উপস্থিতি দেখিয়ে সাধারণ জুম্ম জনগণের উপর দমন-পীড়ন চালানোর জন্য পুলিশ এধরনের সাজানো নাটক মঞ্চস্থ করছে বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেক গ্রামবাসী অভিমত ব্যক্ত করেছেন।