রোয়াংছড়িতে সেনাবাহিনী কর্তৃক নিরীহ এক আদিবাসী মারমা যুবক আটক

0
1107

হিল ভয়েস, ১৯ আগস্ট ২০২২, বান্দরবান: বান্দরবান পার্বত্য জেলাধীন রোয়াংছড়ি উপজেলায় রোয়াংছড়ি সেনা ক্যাম্পের সেনাসদস্যদের কর্তৃক চশৈমং মারমা (৩৬), পীং-অংথোয়াই চিং মারমা নামে নিরীহ এক আদিবাসী মারমা যুবক আটকের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সেনা সদস্যরা চশৈমং মারমাকে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে ক্যাম্পে আটক করে রেখেছেন বলে জানা গেছে।

গতকাল ১৮ আগস্ট ২০২২, রাত আনুমানিক ৯:০০ টার দিকে রোয়াংছড়ি সেনা ক্যাম্পের একদল সেনাসদস্য কর্তৃক এই আটকের ঘটনা ঘটে। চশৈমং মারমা’র বাড়ি রোয়াংছড়ি সদর উপজেলা এলাকার নতুন পাড়া গ্রামে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রাত আনুমানিক ৯:০০ টার দিকে সেনা সদস্যরা চশৈমং মারমা’র বাড়িতে প্রবেশ করার সাথে সাথে বন্দুক তাক করে চশৈমং মারমাকে অস্ত্র দিতে বলে। চশৈমং মারমা তার কোনো অস্ত্র নেই বলে জবাব দিলেও সেনা সদস্যরা তাকে ক্যাম্পে ধরে নিয়ে যায়।

চশৈমং মারমা ও তার পরিবারের লোকজন কেন তাকে ধরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে প্রশ্ন করলে সেনা সদস্যরা বলে যে, চশৈমং মারমা জেএসএস গ্রুপের একজন সদস্য এবং সে নাকি ছুটিতে এসেছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত চশৈমং মারমা’র মুক্তি পাওয়ার খবর জানা যায়নি।

এদিকে আটকের ঘটনার পর চশৈমং মারমার পরিবার গভীর উদ্বেগের মধ্যে রয়েছেন বলে জানা গেছে। তাদের আশংকা সেনা সদস্যরা ষড়যন্ত্র করে চশৈমং মারমাকে মিথ্যা মামলায় জড়িত করার পাঁয়তারা করছে।