মাটিরাঙ্গায় বাঙালি সেটেলারদের কর্তৃক জুম্মদের ভূমি বেদখলের চেষ্টা

0
308

হিল ভয়েস, ১৯ জুলাই ২০২৩, খাগড়াছড়ি: খাগড়াছড়ি জেলাধীন মাটিরাঙ্গা উপজেলার মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়ন এলাকায় মুসলিম বাঙালি সেটেলারদের কর্তৃক স্থানীয় জুম্মদের ভূমি বেদখলের চেষ্টা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত পরশু ১৭ জুলাই ২০২৩ সকালের দিকে মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়নের ওয়াসু মৌজার পূর্ব তৈকুম্ভা পাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঐদিন সকাল আনুমানিক ১০টার দিকে পার্শ্ববর্তী সেটেলার এলাকার ৮-১০ জনের মুসলিম বাঙালি সেটেলারদের একটি দল পূর্ব তৈকুম্ভা পাড়া এলাকায় গিয়ে জুম্মদের মালিকানাধীন প্রথাগত জায়গায় জঙ্গল পরিষ্কার করা শুরু করে।

এক পর্যায়ে ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয় জুম্ম নারী-পুরুষরা ঘটনাস্থলে ছুটে আসে এবং জঙ্গল কাটারত সেটেলারদের জঙ্গল কাটতে বাধা প্রদান করে। এরপর বাঙালিরা সেটেলাররা সেখান থেকে চলে যায়।

উল্লেখ্য, গত ১৭ জুলাই ২০২৩ হিল ভয়েসে প্রকাশিত এক রিপোর্টে জানা যায়, একই দিন রাঙ্গামাটি জেলাধীন লংগদু উপজেলার ভাসন্যাদম ইউনিয়নেও মুসলিম বাঙালি সেটেলারদের কর্তৃক জোরপূর্বক জুম্মদের মালিকানাধীন প্রথাগত ভূমি বেদখলের পাঁয়তারা চালানো এবং এই উদ্দেশ্যে বিভিন্ন ফলজ গাছ সহ জঙ্গল পরিষ্কার করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া যায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঐদিন সকাল আনুমানিক ৯টার দিকে লংগদুর ৫নং ভাসন্যাদম ইউনিয়নের ১৭নং ঘনমোড় মৌজার অন্তর্গত শীলকাটা ছড়া সেটেলার বসতি এলাকার ২০-২২ জনের বাঙালি সেটেলারদের একটি দল শীলকাটা ছড়া গ্রামে জুম্মদের মালিকানাধীন প্রথাগত ভূমিতে ফলজ গাছ সহ জঙ্গল পরিষ্কার করা শুরু করে।

বাঙালি সেটেলারদের কর্তৃক জঙ্গল পরিষ্কার করার ঘটনা জানাজানি হলে ভূমির মালিক জুম্মরা তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে যান এবং তাদের জায়গায় বাঙালি সেটেলারদের জঙ্গল পরিষ্কার করতে নিষেধ করেন। কিন্তু বাঙালি সেটেলাররা জুম্মদের নিষেধ তোয়াক্কা না করে জুম্মদের রোপণকৃত আম, লিচু ও আমলকি গাছ সহ কমপক্ষে ২ একর পরিমাণ জায়গার জঙ্গল পরিষ্কার করে চলে যায়।

যাওয়ার সময় বাঙালি সেটেলাররা উক্ত জায়গাটি ভূমি বেদখলের চেষ্টায় নেতৃত্বদানকারী শীলকাটাছড়া সেটেলার এলাকার বাসিন্দা মোঃ হোসেন এর জায়গা বলে দাবি করে উল্টো বিভিন্ন হুমকি দিয়ে যায়।