বান্দরবানে সেনামদদপুষ্ট সন্ত্রাসীদের কর্তৃক এক কার্বারি অপহরণের শিকার

0
243
ছবি: প্রতীকী

হিল ভয়েস, ১৭ জুন ২০২২, বান্দরবান: সেনাবাহিনী ও আওয়ামী লীগ মদদপুষ্ট ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) সন্ত্রাসীদের কর্তৃক বান্দরবান পার্বত্য জেলাধীন বান্দরবান সদর উপজেলার টংকাবতী ইউনিয়ন এলাকা থেকে বিজয় হংস চাকমা (৫৮) নামে এক কার্বারি (গ্রাম প্রধান) অপহরণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আজ ১৭ জুন ২০২২ বিকাল আনুমানিক ৩:০০ টার দিকে কার্বারির নিজ বাড়ি থেকেই এই অপহরণের ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে।

কার্বারি বিজয় হংস চাকমার বাড়ি টংকাবতী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের টংকাবতী পুনর্বাসন চাকমা পাড়া গ্রামে। তিনি ঐ গ্রামেরই কার্বারি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আজ বিকাল আনুমানিক ৩:০০ টার দিকে ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) এর বান্দরবান জেলা শাখার সভাপতি মংপু মারমা (হেডম্যান), প্রশাসনিক দায়িত্বে থাকা অনুপম চাকমা ও অনুমং মারমা’র নেতৃত্বে সন্ত্রাসীদের একটি সশস্ত্র দল টংকাবতী পুনর্বাসন চাকমা পাড়া গ্রামে আসে এবং কার্বারি বিজয় হংস চাকমাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

সূত্রটি জানায়, কার্বারি বিজয় হংস চাকমাকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার পর অপহরণকারী সন্ত্রাসীরা ভুক্তভোগীর পরিবারের কাছে ১ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছে। অপহরণকারীরা ১ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ নিয়ে মেঘলা পর্যটন এলাকার চাকমা পাড়ার পার্শ্ববর্তী জঙ্গলে গিয়ে তাদের সাথে দ্রুত যোগাযোগ করার পরামর্শ দিয়েছে। মুক্তিপণ না দিলে অপহৃতকে ছেড়ে না দিয়ে কোনো এক হত্যা মামলায় জড়িত করে সেনাবাহিনী বা পুলিশের নিকট সোপর্দ করা হবে বলে হুমকি দিয়েছে।

অপহৃতের পরিবারের সূত্রে জানা গেছে, গত চার মাস আগেও একবার কার্বারি বিজয় হংস চাকমাকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি করে ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) সন্ত্রাসীরা। সেই সময় সন্ত্রাসীরা ২ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা মুক্তিপণ নিয়ে কার্বারি বিজয় হংস চাকমাকে ছেড়ে দেয়।

অপহরণ ঘটনার পরপরই পরিবারের পক্ষ থেকে ঘটনার বিষয়ে প্রশাসনকে অবহিত করা হয় এবং সহযোগিতা চাওয়া হয়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত প্রশাসন কর্তৃক কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করার কথা জানা যায়নি।

অপহরণকারীরা এখনো পর্যন্ত অপহৃত কার্বারি বিজয় হংস চাকমাকে মেঘলা পর্যটন এলাকার চাকমা পাড়ার বৌদ্ধ বিহারের তাদের দখলকৃত জায়গায় আটকে রেখেছে বলে স্থানীয় একটি সূত্র জানিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here