বাঘাইছড়িতে বিজিবি কর্তৃক বৌদ্ধ বিহারের জায়গা বেদখলের পাঁয়তারা এবং হুমকি প্রদান

0
296

হিল ভয়েস, ২৯ জুন ২০২১, বাঘাইছড়ি: রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলাধীন ৩০ নং সারোয়াতুলী ইউনিয়নে ১নং ওয়ার্ডে শিজক খাগড়াছড়ি বন বিহারে গিয়ে একদল বিজিবি সদস্য কর্তৃক বৌদ্ধ বিহারের জায়গা বেদখলের পাঁয়তারা এবং বিহার পরিচালনা কমিটিকে হুমকি প্রদানের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আজ ২৯ জুন ২০২১ আনুমানিক সকাল ৯ ঘটিকার সময় এই ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় মাধ্যমে জানা যায়, বাঘাইছড়ি উপজেলাধীন ৩০ নং সারোয়াতুলী ইউনিয়নে ১নং ওয়ার্ডে শিজক খাগড়াছড়ি বন বিহারে ২৭ বিজিবি মারিশ্যা জোনের অধীনে কচুছড়ি(কজোইছড়ি) বিজিবি ক্যাম্প থেকে একটি টহল দল  ক্যাপ্টেন মোঃ সাদি ও ওয়ারেন্ট অফিসার মোঃ আবদুল সালামের নেতৃত্বে আনুমানিক সকাল ৯ ঘটিকার সময়ে শিজক খাগড়াছড়ি বন বিহারটির পরিদর্শনে যায়।

পরে বিকালে আনুমানিক সাড়ে ৪ ঘটিকার সময়ে বাঘাইছড়ি থানার ওসি আনোয়ার হোসেন খান বিহার পরিদর্শন করে ও বিহার পরিচালনা কমিটির সাথে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করে। আলোচনার সময় ওসি বিহার কমিটির সাথে বিভিন্ন ধরনের হুমকি মূলক কথা বলেন এবং জায়গাটি সেনাবাহিনী ও বিজিবিদের  ক্যাম্প করার জন্য পরিকল্পনা আছে বলে জানান।

উল্লেখ্য যে, গত ২৬ জুন ২০২১ তারিখ, উক্ত বিজিবি ক্যাম্পের ১২জন বিজিবি সদস্য কর্তৃক শিজক খাগড়াছড়ি বনবিহারে গিয়ে অত্র বিহারের অধ্যক্ষ তারেং ভিক্ষুকে বিহারের প্রাচীর নির্মাণ কার্য বন্ধ করতে এবং ইতিমধ্যে যেটুকু ওয়াল দেয়া হয়ে গেছে সেগুলো ভেঙ্গে ফেলার হুমকি প্রদান করে।

তার পরের দিন, ২৭ জুন ২০২১ তারিখ, সকালে আবার বিজিবি সদস্যরা উক্ত জায়গা পরিদর্শনে আসে। এসময় বিজিবি সদস্যরা যখন দেখে তাদের নির্দেশমতো বিহারের চারপাশে ইতিমধ্যে যেটুকু ওয়াল দেয়া হয়ে গেছে সেগুলো ভেঙ্গে ফেলা হয়নি তখন কয়েকজন বিজিবি সদস্য জোরপূর্বক ওয়ালগুলো লাঠি মেরে ভেঙে দেয় এবং হুমকি দেয় যে, উপর থেকে তাদেরকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে উক্ত বিহারের কোন প্রকারের সীমানা প্রাচীর স্থাপনা করা যাবে না। যদি তাদের এই নির্দেশনা অমান্য করে জোরপূর্বক বিহারের সীমানা প্রাচীর স্থাপনার কার্য চলমান থাকে তাহলে সে সাধারণ জনগণ হোক অথবা বৌদ্ধ ভিক্ষু হোক, কাউকে ছাড় দেয়া হবে না বলেও হুমকি দেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here