দুর্গাপুরে আদিবাসীর স্ত্রীকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় স্বামীকে মারধর

0
729

হিলভয়েস, ১১ আগস্ট ২০২০, নেত্রকোণা: স্ত্রীকে ইভটিজিং করায় স্বামী প্রতিবাদ করলে উত্ত্যক্ত কারীদের হাতে স্বামী মারধরের শিকার হন। ঘটনাটি রোববার (৯ আগস্ট ২০২০) সন্ধ্যা ৭টার দিকে নেত্রকোণা জেলার দুর্গাপুর থানার গোহালীডেও গ্রামে ঘটে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী সাগর রাংসা জানান, স্বামী সাইমন রেমার স্ত্রীকে নিয়ে কাকার বাড়ি থেকে নিজবাড়িতে যাচ্ছিলেন। এই সময় তাদের পিছু নেয় রাব্বি ওরফে লাদেন ও তার দুইবন্ধু। এক পর্যায়ে উত্ত্যক্তকারী লাদেন সাইমন রেমার স্ত্রীকে দেখে অশ্লীল গান করতে শুরু করে।

স্বামী সাইমন লাদেনকে অশ্লীল গান গাইতে নিষেধ করলে দুজনের মাঝে তর্ক শুরু হয়। তর্ক থেকে এক পর্যায়ে হাতাহাতিও হয়। পরে বালুরপোতে থাকা লোকজনই তাদের মিটমাট করে দেয়। তারপর সাইমন ও তার স্ত্রী বাড়িতে চলে যান।

অন্যদিকে লাদেন মিটমাট মানতে না পেরে মোবাইল ফোনে কল দিয়ে আরও ২০/২৫ জন সাঙ্গ-পাঙ্গকে নিয়ে আসে। তারা সাইমনের বাড়িতে গিয়ে গালিগালাজ করে ও মেরে ফেলার হুমকি দেয়। লাদেন ও তার দল ফেরার পথে গ্রামের লোকজন পথ আটকিয়ে সাইমনের স্ত্রীকে উত্ত্যক্ত করার ব্যাপারে জানতে চাইলে লাদেনের গ্রুপ তাদের উপর অতর্কিতে হামলা চালায়।

এতে সাইমনসহ গ্রামের আরো ৪জন আহত হন। ধারালো অস্ত্রে কারো পিঠে, কারো মাথা, কারো হাতে রক্তাক্তভাবে জখম হয়। পরে ঘটনাটি পুলিশকে জানানো হলে ঘটনাস্থলে পুলিশ চলে আসতে আসতে লাদেন তার লোকজন নিয়ে পালিয়ে যায়। আহত ৫ জনকে দুর্গাপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

দুর্গাপুর থানারও সিঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। সাইমন রেমা ১০ আগস্ট সন্ধ্যার দিকে লাদেনকে প্রধান আসামী কওে অজ্ঞাত আর ১০/১৫ জনের নাম করে দুর্গাপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।