টেলিভিশন ক্লাশ নিতে পাচ্ছে না ৭৫ শতাংশ আদিবাসী শিক্ষার্থী

0
1254
ফাইল ছবি

হিল ভয়েস, ২১ জুন ২০২০প্রাণঘাতী মহামারি করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে সংসদ টেলিভিশনে প্রচারিত শ্রেণি পাঠদানে অংশ নিতে পাচ্ছে না ৭৫ শতাংশ আদিবাসী শিক্ষার্থী। গত ২০ জুন ২০২০ শনিবার সন্ধ্যায় ‘বাংলাদেশে শিক্ষার ওপর কোভিড-১৯ এর প্রভাব’ শীর্ষক এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় এ তথ্য জানানো হয়।

বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাকের একটি জরিপ থেকে ওই সভায় আর জানানো হয়, সারা দেশ থেকে টেলিভিশন ক্লাসে অংশ নিতে না পারা শিক্ষার্থী রয়েছে ৫৬ শতাংশ। সবচেয়ে বেশি ৭৫ শতাংশ আদিবাসী শিক্ষার্থী সংসদ টেলিভিশনের ক্লাসে অংশ নিচ্ছে না।

মাদ্রাসা, গ্রামাঞ্চল ও প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৭১ শতাংশ শিক্ষার্থীর টেলিভিশন ক্লাসে অংশ নেওয়ার ব্যাপারে সীমাবদ্ধতা রয়েছে। ব্র্যাক বলছে, টিভি না থাকা, বিদ্যুৎ বা ক্যাবল না থাকার কারণে তারা টিভি ক্লাসের বাইরে রয়েছে।

অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে নানান উদ্যোগ নিয়েছে মন্ত্রণালয়।

শিক্ষার্থীরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেজন্য অনলাইন এবং সামাজিক দূরত্ব মেনে নানা উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। মন্ত্রী জানান, টেলিভিশন ও রেডিওতে পাঠদানের পর এবার চালু করা হচ্ছে বিশেষ হেল্প লাইন নম্বর ৩৩৩৬। চলতি জুনেই পরীক্ষামূলকভাবে এটি চালু হবে।

জরিপে আরও উঠে এসেছে, টেলিভিশনের ক্লাসে যে ৪৪ শতাংশ শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে তাদের মধ্যে ৬৪ শতাংশ বলছে এসব ক্লাস তাদের কাজে লাগছে না।

সারাদেশ থেকে ১৬টি জেলা বাছাই করে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১ হাজার ৯৩৮ জন শিক্ষার্থীর ওপর এই জরিপ করা হয়। বর্তমানে দেশে প্রাথমিক ও মাধ্যমিকে অধ্যয়ন করছে তিন কোটি ১০ লাখ শিক্ষার্থী।

সূত্র: জনজাতিরকণ্ঠ.কম