জুরাছড়িতে সেনাবাহিনী কর্তৃক ক্যাম্পে ডেকে নিয়ে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী এক জুম্মকে হয়রানি

0
722
ছবি : প্রতিকী

হিল ভয়েস, ৮ এপ্রিল ২০২৪, রাঙ্গামাটি: রাঙ্গামাটি জেলাধীন জুরাছড়ি উপজেলার বনযোগীছড়া ইউনিয়নে অবস্থিত বনযোগীছড়া সেনা জোনে আসন্ন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এক জুম্মকে ডেকে এনে প্রায় দশ ঘন্টা ধরে আটকে রেখে হয়রানি করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

প্রায় সারাদিন ক্যাম্পের এক জায়গায় বসিয়ে রেখে রাত ৭:৩০ টার দিকে বাড়িতে যেতে অনুমতি দেওয়া হয় বলে জানা গেছে।

ভুক্তভোগী ওই ব্যক্তির নাম কামিনী চাকমা (৪২), পীং-সুভাষ বসু চাকমা, গ্রাম-কাংড়াছড়ি, ৩নং ওয়ার্ড, ২নং বনযোগীছড়া ইউনিয়ন। তিনি বনযোগীছড়া ইউনিয়নের সাবেক নির্বাচিত মেম্বার এবং আসন্ন প্রথম পর্যায়ের উপজেলা নির্বাচনের একজন ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, আজ সকাল আনুমানিক ১০ টার দিকে জুরাছড়ি সদরের যক্ষাবাজার সেনা ক্যাম্পের চার সেনা সদস্য কামিনী চাকমাকে যক্ষা বাজারে পেয়ে তাকে বনযোগীছড়া সেনা জোনে ডেকে নিয়ে যায়। সেখানে প্রায় ১০ ঘন্টা ধরে কামিনী চাকমাকে বনযোগীছড়া সেনা জোনের অভ্যর্থনা কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত ‘গোল ঘরে’ অপেক্ষমান অবস্থায় রাখা হয় বলে জানা গেছে। তার সাথে কোনো কথা না বলে কামিনী চাকমাকে কেবল বসিয়ে রাখা হয়।

পরে রাত ৭:৩০ টার দিকে জনৈক এক সেনা সদস্য এসে ‘আজ ক্যাম্প কমান্ডার উপজেলা নির্বাচন বিষয়ে কথা বলতে চেয়েছেন, কিন্তু কথা বলার সময় পেলেন না’ বলে কামিনী চাকমাকে ছেড়ে দেন বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, এটা কামিনী চাকমাকে এক ধরনের হয়রানি ও নিপীড়ন ছাড়া আর কিছু নয়।

এদিকে সেনা সদস্যরা সকালে ডেকে নিয়ে কামিনী চাকমাকে সারাদিন বাড়িতে ফিরতে না দেওয়ায় তার পরিবার ও গ্রামের লোকজনের মধ্যে গভীর উদ্বেগের সৃষ্টি হয় বলে জানা গেছে।