জুরাছড়িতে সেনাবাহিনী কর্তৃক ৬ গ্রামবাসীকে হয়রানি ও বাড়িতে তল্লাসি

0
292

হিল ভয়েস, ৩১ মার্চ ২০২৩, রাঙামাটি: বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক রাঙামাটি জেলাধীন জুরাছড়ি উপজেলার শিলছড়িমোন পাড়া গ্রামের ৬ নিরীহ জুম্ম গ্রামবাসী সাময়িক আটক ও হয়রানির শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়া সেনাবাহিনী এক জুম্মর বাড়িতে ব্যাপক তল্লাসি চালায় বলে জানা যায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল ৩০ মার্চ ২০২৩ জুরাছড়ি উপজেলার বনযোগীছড়া সেনা জোনের অধীন শীলছড়ি সেনা ক্যাম্পের জনৈক ওয়ারেন্ট অফিসারের নেতৃত্বে ১৯ জনের একটি সেনাদল জুরাছড়ি ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের শীলছড়িমোন পাড়া গ্রামে টহল অভিযানে যায়। এক পর্যায়ে দুপুর ১:০০ টার দিকে সেনাদলটি উক্ত গ্রামের শান্তি জীবন চাকমার বাড়িতে ব্যাপক তল্লাসি চালায়।

এসময় সেনাদলটি শান্তি জীবন চাকমার বাড়িতে বেড়াতে আসা একই গ্রামের ৬ প্রতিবেশিকে ধরে সেখান থেকে ঘিলাতলী নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নিয়ে যায়। তখন সেখানে অবস্থানরত বনযোগীছড়া সেনা জোনের মেজর এহতে শামসুল হক উক্ত ৬ গ্রামবাসীকে বিভিন্ন অপ্রাসঙ্গিক প্রশ্ন করে হয়রানি করেন এবং প্রায় তিন ঘন্টা আটক রাখেন। এসময় মেজর এহতে শামসুল হক গ্রামে সন্ত্রাসী আসলে সেনাবাহিনীকে খবর দিতে হবে বলে ৬ গ্রামবাসীকে নির্দেশ দেন।

ভুক্তভোগী ৬ গ্রামবাসী হলেন- (১) শান্তি জীবন চাকমা, পীং-নিলচন্দ্র চাকমা, (২) সুনীল চাকমা, পীং-সম্রাট চাকমা, (৩) ডানিয়েল চাকমা, পীং-শান্তশীল চাকমা, (৪) অমর চাকমা, পীং-অজ্ঞাত, (৫) নাম অজ্ঞাত ও (৬) নাম অজ্ঞাত।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সেনাবাহিনীর ৩টি দল তিনটি স্কুলে অবস্থান করছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। স্কুলগুলি হল- ১. ঘিলাতুলী নিম্ন মাধ্যামিক বিদ্যালয়, ২. সামিড়া সরকারি প্রাথামিক বিদ্যালয় ও ৩. চুমাচুমি সরকারি প্রাথামিক বিদ্যালয়।