রাজস্থলী ও জুরাছড়িতে সেনাবাহিনীর হয়রানি, নিপীড়ন ও ক্যাম্প স্থাপনের চেষ্টা, ১ জন গ্রেপ্তার

0
24
ছবি: প্রতীকী

হিল ভয়েস, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, রাঙ্গামাটি: রাঙ্গামাটি জেলার রাজস্থলী ও জুরাছড়ি উপজেলায় সম্প্রতি বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক সাধারণ জুম্ম জনগণের উপর একাধিক হয়রানি, নিপীড়ন ও একটি সেনা ক্যাম্প স্থাপনের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ বিকাল ৫:০০ টার দিকে রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নে বাঙ্গাহালিয়া সেনা ক্যাম্পের একদল সেনা সদস্য ক্রংসাংগইং পাড়া নামক গ্রামে গিয়ে পর পর তিনটি মারমা গ্রামবাসীর বাড়িতে দরজা ভেঙে প্রবেশ করে। এসময় সেনা সদস্যরা এলোপাতাড়ি ব্রাশ ফায়ার করে এবং তল্লাসি চালিয়ে বাড়ির জিনিসপত্র তছনছ করে দেয়।

ভুক্তভোগী বাড়ির মালিকরা হলেন- ১. উমাঞো মারমা (৪১), স্বামী-মংসিংনু মারমা, ২. অংক্রাপ্রু মারমা (৪২), স্বামী-সুইনুমং মারমা, ৩. ওয়হলাচিং মারমা (৪৫), স্বামী-সুইক্য উ মারমা। ঘটনার সময় বাড়ির মালিকরা কেউই বাড়িতে ছিলেন না বলে জানা গেছে।

গত ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ রাজস্থলী সেনা ক্যাম্পের কম্যান্ডার ক্যাপ্টেন মোঃ আবিদ এর নেতৃত্বে একদল সেনা সদস্য বড় কুক্যছড়ি পাড়া গ্রামের জুম্ম গ্রামবাসীদের নিকট হতে তাদের আইডি কার্ডগুলো সংগ্রহ করে সেনা ক্যাম্পে নিয়ে আসে। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সেনাবাহিনী উক্ত গ্রামবাসীদের আইডি কার্ডগুলো ফেরৎ দেয়নি বলে জানা গেছে।

অপরদিকে ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ রাজস্থলীর পার্শ্ববর্তী কাপ্তাই উপজেলার ১নং নারানগিরি সেনা ক্যাম্পের কম্যান্ডার ওয়ার‌্যান্ট অফিসার মোঃ আব্দুল কুদ্দুস এর নেতৃত্বে একদল সেনা সদস্য ২নং রাইখালী ইউনিয়নের ১নং সীতা পাহাড় পাড়া গ্রামে টহল অভিযানে যায়। এসময় সেনাদলটি উক্ত জুম্ম গ্রামবাসীদের তালিকা করে, ফটো তুলে তাদের আইডি কার্ডগুলোও সেনা ক্যাম্পে নিয়ে যায়।

এদিকে গত ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ হিল ভয়েস এর জুরাছড়ি সংবাদদাতা স্থানীয় জনগণের বরাত দিয়ে জানান, উপজেলার ১নং জুরাছড়ি ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের কাঠালতলী নামক এলাকায় সেনাবাহিনী একটি হেলিপ্যাডসহ সেনাক্যাম্প স্থাপনের পাঁয়তারা করছে।

স্থানীয় সূত্র অনুসারে, বনযোগীছড়া সেনা জোনের অধীন শিলছড়ি সেনা ক্যাম্পের সুবেদার মোঃ রেজাউল সম্প্রতি জুরাছড়ি ইউনিয়নের কাঠালতুলি এলাকার সংশ্লিষ্ট এক কার্বারিকে উক্ত সেনা ক্যাম্প স্থাপনের চেষ্টার কথা জানান। সুবেদার মোঃ রেজাউল উক্ত কার্বারিকে বলেন, কাঠালতুলি নামক স্থানে পার্বত্য চুক্তির আগে একটি সেনাবাহিনীর ক্যাম্প ছিলো। সেই জায়গাটিতে হেলিপ্যাডসহ ক্যাম্প স্থাপন করা হবে। এলাকার লোকজন নিয়ে দ্রুত সময়ের মধ্যে পুরো জায়গাটি পরিষ্কার করে দিতে হবে।

অপরদিকে একই জোনের অধীন লুলাংছড়িতে নতুন স্থাপিত সেনা ক্যাম্পের ওয়ারেন্ট অফিসার মোঃ শহীদুল ইসলাম লুলাংছড়ি ক্যাম্পের এলাকাধীন সকল কার্বারিগণকে ডেকে তাদের সেনা ক্যাম্পের জন্য একটি গোলঘর নির্মাণ করে দেওয়ার নির্দেশ প্রদান করেন।

১ জন গ্রেপ্তার

গতকাল ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ রাত আনুমানিক ৪:৩০ টার দিকে জনৈক ক্যাপ্টেন এর নেতৃত্বে জুরাছড়ির বনযোগীছড়া সেনা জোনের একদল সেনা সদস্য অক্ষয় চাকমা ওরফে বড় নাক্কো, পীং-মৃত টুপি চাকমা নামে এক জুম্মকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায় বলে জানা গেছে। অক্ষয় চাকমা’র বাড়ি বনযোগীছড়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের রাস্তামাথা নামক এলাকায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here