জুরাছড়িতে সেনাবাহিনী কর্তৃক দুই জুম্ম আটক, এক বাড়িতে তল্লাসি ও ভাঙচুর

0
16
ছবি : প্রতিকী

হিল ভয়েস, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, রাঙ্গামাটি: রাঙ্গামাটি জেলাধীন জুরাছড়ি উপজেলার বনযোগীছড়া ইউনিয়নের বনযোগীছড়া সেনা জোনের সেনাবাহিনী কর্তৃক দুই জুম্মকে আটক করা এবং একটি বাড়িতে তল্লাসি ও বাড়ির জিনিসপত্র ভাঙচুর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে আটককৃতদের মধ্যে পরে একজনকে ছেড়ে দেওয়া হলেও, অন্য একজনকে এখনো সেনা জোনে আটক রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আজ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ভোর রাত আনুমানিক ৪:৩০ টার দিকে জনৈক ক্যাপ্টেন এর নেতৃত্বে জুরাছড়ির বনযোগীছড়া সেনা জোনের একদল সেনা সদস্য প্রথমে অক্ষয় চাকমা ওরফে বড় নাক্কো, পীং-মৃত টুপি চাকমা নামে এক জুম্মকে নিজ বাড়ি থেকে আটক করে সেনা জোনে নিয়ে যায়। অক্ষয় চাকমা’র বাড়ি বনযোগীছড়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের রাস্তামাথা নামক এলাকায়। সেনা জোনে নিয়ে সেনা সদস্যরা অক্ষয় চাকমাকে ব্যাপক মারধর করেছে বলে জানা গেছে।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সেনাবাহিনী অক্ষয় চাকমাকে বনযোগীছড়া সেনা জোনে আটক করে রেখেছে বলে জানা গেছে।

আরো জানা গেছে, বনযোগীছড়া সেনা জোনে নিয়ে গিয়ে অক্ষয় চাকমাকে ব্যাপক মারধর করার পর, বিকেলের দিকে সেনাবাহিনীর একটি দল অক্ষয় চাকমাকে নিয়ে পার্শ্ববর্তী বরকল উপজেলার সুবলং ইউনিয়নের এরাইছড়ি গ্রামে যায়। সেনা সদস্যরা সেখানে সাধন চাকমা (৪৫), পীং-রজনীকান্ত চাকমা এর বাড়িতে যায়। সাধন চাকমাকে বাড়িতে না পেয়ে সেনা সদস্যরা সাধন চাকমার বাড়িতে ব্যাপক তল্লাসি চালায়। তল্লাসির সময় সেনা সদস্যরা বাড়ির আলমিরা, খাট ভেঙে দেয় এবং জিনিসপত্র তছনছ করে দেয়।

অপরদিকে বিকেল আনুমানিক ৪:০০ টার দিকে সেনা সদস্যরা সাধন চাকমার বড় ভাই রনজিৎ চাকমার ছেলে অরুণ কান্তি চাকমা চিক্কোকে (২০) নিজ বাড়ি থেকে আটক করে বনযোগীছড়া সেনা জোনে নিয়ে যায়। অরুণ কান্তি চাকমা চিক্কো রাঙ্গামাটি সরকারি কলেজের বিএ পড়ুয়া এক ছাত্র।

প্রায় ৩ ঘন্টা আটক রাখার পর রাত আনুমানিক ৭:০০ টার দিকে বনযোগীছড়া সেনা জোনের সেনাবাহিনী অরুণ কান্তি চাকমা চিক্কোকে ছেড়ে দিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here